J S C/J D C

                                                                                                                                                                   

আমাদের বাংলাদেশে 2011 এর JSC/JDC পরীক্ষার তথ্য

সাধারণ তথ্যঃ এবার অনুষ্ঠিত জেএসসি ও জেডিসির ১৮ লাখ পরীক্ষার্থীর খাতা মূল্যায়নসহ অন্যান্য কাজ শেষ করতে বোর্ডগুলো সময় পেয়েছে একমাস। এত অল্প সময়ে কাজ করতে গিয়ে পরীক্ষার খাতা মূল্যায়ন, মডারেশন এবং ফল শিট প্রস্তুত নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছিল বোর্ডগুলো। পরীক্ষার্থী ও কাজের পরিমাণ অনেক বেশি হওয়ায় সবচেয়ে বেশি জটিলতায় পড়ে ঢাকা শিক্ষাবোর্ড। গত ১ নবেম্বর থেকে ২১ নবেম্বর পর্যন্ত ১৮ লৰাধিক শিশু আর তার অভিভাবকদের উৎসাহের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছিল জেএসসি ও পরীক্ষা। দেশব্যাপী দ্বিতীয়বারের মতো অনুষ্ঠিত এই পরীক্ষার প্রথমদিনই ফরম পূরণ করেও পরীৰার হলে আসেনি ৫৫ হাজার ৩৪৭ পরীৰার্থী। তবে তাতে উৎসারের কমতি ছিল না। গেল বছরের মতো এবারও স্কুলকে কেন্দ্র করে ছিল একই আমেজ। কারিগরি শিক্ষাস্তর নবম শ্রেণী থেকে হওয়ায় অষ্টম শ্রেণীর পরীৰার আওতায় আসবে সাধারণ এবং মাদ্রাসা শিক্ষাস্তর। গত বছর প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থীদের জন্য নির্ধারিত সময়ের অতিরিক্ত ১৫ মিনিট সময় দেয়া হয়েছিল। এ বছর সময় বৃদ্ধি করে ২০ মিনিট করা হয়। দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ছাড়াও এবার অন্যান্য প্রতিবন্ধীর জন্য (যাদের হাত নেই বা হাত দিয়ে লিখতে পারে না) শ্রুতি লেখকের সুযোগ রাখা হয়। জানা গেছে, সাধারণ আট ও একটি মাদ্রাসা বোর্ডের অধীনে পরীৰার জন্য ফরম পূরণ করে অষ্টম শ্রেণীর ১৮ লাখ ৬১ হাজার ১১৩ জন পরীক্ষার্থী। যাদের মধ্যে নয় লাখ ৯৯ হাজার ৩৪৯ ছাত্রী এবং ৮ লাখ ৬১ হাজার ৭৬৪ ছাত্র। ছাত্রীর সংখ্যা ছাত্রদের তুলনায় এক লাখ ৩৭ হাজার ৫৮৫ জন বেশি। গত বছর মোট পরীৰার্থী ছিল ১৫ লাখ ২০ হাজার ৭৩১ জন। বিদেশের সাতটি পরীৰা কেন্দ্র থেকে জেএসসি পরীৰায় অংশ নিয়েছে ৩৮৫ শিক্ষার্থী।

রেজাল্ট এখানে

আর যদি বুঝতে সমস্যা হয়,তাহলে বিস্তারীত এখানে

                                                                                                                                                                  

%d bloggers like this: