একটু অসাবধানতার জন্য যেন Facebook পাসওয়ার্ড চুরি হয়ে না যায়…


আমারও ইচ্ছা হল আপনাদের সাথে কিছু শেয়ার করি। আপনারা দেখবেন অনেক ওয়েবসাইটে ফেসবুক-এর like বাটন থাকে। মুক্তকন্ঠেও আছে। মনে করুন, আপনি Mozilla Firefox ব্রাউজার ব্যবহার করছেন। আপনার facebook account-এ লগিন করা নেই। আপনি মুক্তকন্ঠ ভিসিট করছেন। তখন সাইড বার-এ like বাটনটাতে চোখ পড়ল। আপনি বাটনে ক্লিক করলেন। তাহলে, নতুন একটি window ওপেন হবে। তাতে লেখা আছে “Log in to Facebook to like মুক্তকণ্ঠ”। আপনি নিশ্চিন্ত মনে ইমেইল ও পাসওয়ার্ড দিলেন। মুক্তকন্ঠ-কে like করলেন। কিন্তু আপনি একবারও কল্পনাতেও ভাবেননি, আপনার পাসওয়ার্ড মুক্তকন্ঠ জেনে যেতে পারে। like বাটন-এর অপশনটা facebook থেকে ফ্রি পাওয়া যায়। এখন কোন কোন ওয়েবসাইট তাদের নিজেদের তৈরি পেজ ব্যবহার করে। ফলে, like করার সময় যে ইমেইল ও পাসওয়ার্ড দেন তা নির্দিষ্ট আড্রেস-এ চলে যায়। এখন আপনাদের মনে হয়ত একটা প্রশ্ন উঁকি দিচ্ছে, তাহলে কি কোন ওয়েবসাইট like করব না? কেন নয়, অবশ্যই like করবেন। এই সমস্যার খুব সহজ একটা সমাধান আছে। আপনি কোন কিছু like করতে চাইলে একই ব্রাউজার-এ নতুন একটি ট্যাব (new tab) খুলুন। নতুন ট্যাব-এ facebook-এ লগিন করুন। তারপর ওয়েব পেজটির like বাটনে করুন  করুন। দেখবেন এবার নতুন window ওপেন হবে না। আপনি এবার নিশ্চিন্তে like করতে পারলেন। এখন আরেকটি প্রশ্ন মাথায় ঘুরপাক খাচ্ছে, আমি মুক্তকন্ঠকে like করার সময়তো এই পদ্ধতি অবলম্বন করিনি, তাহলে আমি মুক্তকন্ঠকে like করার সময় আমার পাসওয়ার্ড মুক্তকন্ঠ জেনে গেছে? না আসলে তা নয়। সব ওয়েবসাইট এরকম নয়। যদি এমন হয়, একই ব্রাউজারে কোন ট্যাবে facebook-এ লগিন করে আছেন তবু নতুন window ওপেন হয়ে তাতে পাসওয়ার্ড চাইছে। তাহলে বুঝতে হবে পেজটি নিরাপদ নয়। কারন লগিন থাকার পরও পাসওয়ার্ড চাওয়ার মানে ওরা নিজস্ব পেজ ব্যবহার করছে। চোর ওয়েবপেজ-এ বাটন চাপলেই পাসওয়ার্ড চায় facebook-e লগিন করা থাক বা না থাক। নতুন ট্যাব-এ facebook-এ লগিন করে মুক্তকন্ঠ-এর like বাটনে ক্লিক করলে দেখবেন like হয়েছে, নতুন window ওপেন হয়নি। মানে, মুক্তকন্ঠ আপনি যেভাবেই like করুন (আগে লগিন করুন আর পরে লগিন করুন) কোন রিস্ক নেই। কিছু কিছু ওয়েবসাইটে লেখা থাকে গুগল বা ফেসবুক দিয়ে লগিন করুন। এসব ওয়েবসাইটে লগিন করার আগেও একটু ভেবে নিন।

সম্পূর্ণ কপি+পেষ্ট এখান থেকে

About মোঃ আবুল বাশার

আমি একজন ছাত্র,আমি লেখাপড়ার মাঝে মাঝে একটা ছোট্ট প্রত্রিকা অফিসে কম্পিউটার অপরেটর হিসাবে কাজ করে,নিজের হাত খরচ চালানোর চেষ্টা করি, আমি চাই ডিজিটাল বাংলাদেশ হলে এবং তাতে সেই সময়ের সাথে যেন আমিও কিছু শিখতে পারি। আপনারা সকলে ৫ ওয়াক্ত নামাজ পরার চেষ্টা করি এবং অন্যকেও ৫ওয়াক্ত নামাজ পরার পরামর্শ দিন। আমার পোষ্ট গুলো গুরে দেখার জন্য ধন্যবাদ, ভাল লাগেলে কমেন্ট করুন। মানুষ মাত্রই ভুল হতে পারে,ভুল ত্রুটি,হাসি,কান্না,দু:খ,সুখ,এসব নিয়েই মানুষের জীবন। ভুলে ভড়া জীবনে ভুল হওয়াটা অসম্ভব কিছু নয়,ভুল ত্রুটি ক্ষামার দৃর্ষ্টিতে দেখবেন। আবার আসবেন।

Posted on 05/02/2012, in ফেইজবুক, হ্যাকিং. Bookmark the permalink. ১ টি মন্তব্য.

পোষ্টটি আপনার কেমন লেগেছে? মন্তব্য করে জানান।

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: